২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপে ব্যবহার হওয়া সেরা ৫ টি টেকনোলজি

    গত কয়েক বছরে আমাদের জীবনের প্রয় প্রতি ক্ষেত্রেই টেকনোলজির ব্যাবহার শুরু হয়েছে। খের জগতও তার ব্যতিক্রিম নয়। যদিও ক্রিকেট বা টেনিসের সাথে তুলনা করলে টেকনোলজি ব্যাবহারে কিছুটা দেরি করেছে ফুটবল। তবে টেকনোলজি ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলে এক বড় ভুমিকা নিতে চলেছে। আসুন দেখে নেওয়া যাক এই বছরের বিশ্বকাপে ব্যাবহার হওয়া সেরা পাঁচটি টেকনোলজি।

    ২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপে ব্যবহার হওয়া সেরা ৫ টি টেকনোলজি

    ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারি (VAR)

    এর আগে বিশ্বকাপে রেফারি নিজে চোখে দেখে সব সিদ্ধান্ত নিতেন। কিন্তু এবার থেকে ক্রিকেটের থার্ড আম্পায়ারের মতোই মাঠ থেকে রেফারী স্টেডিয়ামের ভিররে বসে থাকা ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারির সাহায্য নেবেন। মাঠের রেফারির যদি কখনো মনে হয় কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে তার মনে সংসয় আছে তিনি তৎক্ষনাত ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারির কাছে সেই সিন্দান্ত নেওয়ার ব্যাপারে সাহায্য চাইতে পারবেন। স ম্যাচেই একজন প্রধান ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারি আর তিনজন সহকারী ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারি থাকবেন। রেডিওর মাধ্যমে নিজেরা যোগাযোগ স্থাপন করবেন। গোল, লাল কার্ড, কর্ণার যে কোন সিদ্ধানের জন্যই মাঠের রেফারি ভিডিও অ্যাসিসট্যান্ট রেফারির সাহায্য চাইতে পারবেন।

    পারফর্মেন্স ও ট্র্যাকিং সিস্টেম

    টুর্নামান্টের ৩২ টি দলকেই ইলেকট্রনিক পারফর্মেন্স ট্র্যাকিং সিস্টেম (EPTS) দেওয়া হয়েছে। ট্যাবলেট বেসড এই সিস্টেমটি ক্যামেরা ও ওয়্যারেবেল ডিভাইসের মাধ্যমে কাজ করে। প্রত্যেক টিমে কোচ ম্যাচের শেষে জেনে যাবেন তার টিমের খেলোয়াড়রা কটি পাস খেললেন বা কটি ট্যাকেন করেছেন আর অন্য অনেক তথ্য।

    বায়োমেট্রিক ক্যাশলেশ পেমেন্ট

    ২০১৮ সালের সব ভেনুতেই ক্যাশলেস শপিং ভালু করেছে ভিসা। ভিসা পিওএস সেন্টারে স্মার্টফোন বা স্মার্টওয়াচের মাধ্যমেই ফ্যানরা জলদি কেনাকাটা করতে পারবেন।

    4K ও ভার্চুয়াল রিয়ালিটি (VR)

    এই প্রথম ফুটবল বিশ্বকাপ 4K কোয়ালিটিতে টেলিকাস্ট হবে। বিশ্বের একাধিক সার্ভিস প্রোভাইডার বিশ্বকাপের 4K টেলিকাস্ট করছে। এছাড়াও ফুটবল ফ্যানেদের জন্য ভার্চুয়াল রিয়ালিটি নিয়ে এসেছে ব্রডকাস্টাররা। BBC তার গ্রাহকদের বিশ্বকাপে ভার্চুয়াল রিয়ালিটি টেলিকাস্ট করছে।

    নিয়ার ফিল্ড কমিউনিকেশান (NFC)

    ২০১৮ সালের বিশ্বকাপের ব্যাচ বল অ্যাডিডান টেলস্টার ১৮। আর এই বলে একটি NFC চিপ ব্যবহার করেছে অ্যাডিডাস। এর মাধ্যমে মোবাইল ডিভাইসের সেথে সহজেই এই বল কানেক্ট করে মোবাইলের দারুন গেম ও বিভিন্ন কনটেন্ট দেখা যাবে।

    এই ল্যাপটপে আছে 128GB RAM আর 6TB স্টোরেজ

    Read more about:
    English summary
    Here we list out five ways in which technology is being used at the World Cup in Russia

    Bengali Gizbot আপনাকে নটিফিকেশন পাঠাতে চায়

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Gizbot sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Gizbot website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more