জোমাটো, সুইগিতে ভুয়ো রেস্তোরাঁর উপদ্রব

By Gizbot Bureau
|

নতুন বছর শুরু রাতে একটি লোভনীয় ব্ল্যাক ফরেস্ট খেতে চেয়েছিল নয়ডার ১১ বছরের বাসিন্দা শাইশা। এই জন্য মোবাইলে খাবার ডেলিভারি অ্যাপ সুইগি ওপেন করে বাড়ির কাছে সব কেক শপের মুখে জল নিয়ে আসা মেনু থেকে একটি ব্ল্যাক ফরেস্ট অর্ডার করা হয়। অর্ডার করার কিছু সময় পরে সুইগির তরফ থেকে এক প্রতিনিধি ফোন করে ক্ষমা চেয়ে জানান এই অর্ডার ডেলিভারি করা সম্ভব নয়। একাধিক ডেলিভারি বয় নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছেও এই কেক শপ খুঁজে পাননি। ফোনে সুইগি প্রতিনিধি এই অর্ডার বাতিল করে দেওয়ার অনুরোধ জানান।

জোমাটো, সুইগিতে ভুয়ো রেস্তোরাঁর উপদ্রব

 

একই পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে কয়েক মাস আগে দুপুরের খাবার অর্ডার করার পরে ডেলিভারি বয় ফোন করে জানিয়েছিলেন রেস্টুরেন্টের সামনে দড়িয়ে থাকলেও তা বন্ধ রয়েছে। সেই সময়েও অর্ডার বাতিল করার অনুরোধ এসেছিল।

এই ঘটনার পরে অনলাইন খাবার ডেলিভারি অ্যাপে ভুয়ো রেস্টুরেন্টের উপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। রেস্টুরেন্টের অস্তিত্ব না থাকলেও কীভাবে অর্ডার নেওয়া হচ্ছে সেই প্রশ্ন তুলছেন অনেকে।

পরিবারের তরফ থেকে এই ঘটনা জানিয়ে সুইগিকে ফোন করা হলে দীর্ঘ সময় নষ্ট হয়েছে। এর পরে কোম্পানিকে ইমেল করা হলে দুঃখ প্রকাশ ছাড়া আর কিছু জোটেনি।

একই সমস্যার স্বীকার হয়েছে জোমাটো গ্রাহকরাও। সম্প্রতি খান মার্কেটের এক রেস্তোরাঁ থেকে দুপুরের খাবার অর্ডার করার পরে গ্রাহক জানিতে পারেন অনেক দিন হল এই রেস্তোরাঁ বন্ধ হয়েছে। দোকান বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরেও কীভাবে অ্যাপ থেকে গ্রাহক খাবার অর্ডার করতে পারেন সেই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

সম্প্রতি এই রিপোর্ট সামনে আসার পর সুইগি জানিয়েছে এই ঘোটা পদ্ধতি তদারকির জন্য তাদের আলাদা দল রয়েছে। সম্প্রতি প্রকাশিত এক রিপোর্টে এই কথা জানানো হয়েছে। কোন রেস্তোরাঁ বন্ধ হল তা নিয়মিত পরীক্ষা করা হয়। এই রিপোর্টে এই কাজে কোন ভুল হলে তার দায় নিতে স্বীকার করেছে কোম্পানিটি।

Most Read Articles
Best Mobiles in India

Read more about:
English summary
Beware Of Fake Food Apps On Zomato And Swiggy

Best Phones

চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Yes No
Settings X
X