পাঁচ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টে হানা দিয়েছে হ্যাকাররা

    হ্যাক হয়েছে পাঁচ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। শুক্রবার এই কথা জানিয়েছে ফেসবুক। কোম্পানি জানিয়েছে সুরক্ষায় গাফিলতির জন্যই পাঁচ কোটি গ্রাহকের অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ পেয়েছে হ্যাকাররা।

    পাঁচ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টে হানা দিয়েছে হ্যাকাররা

     

    কোম্পানির সিইও মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন ইতিমধ্যেই এই হ্যাকিং অ্যাটাকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে ফেসবুক। মঙ্গলবার প্রথম এই হ্যাকিং চোখে পড়ে ফেসবুক ইঞ্জিনিয়ারদের। বৃহস্পতিবার রাতে এই সমস্যার সধান করেছেন কোম্পানির ইঞ্জিনিয়াররা।

    ফেসবুক এ লগ ইন করার জন্য প্রত্যেকবার লগ ইন আইডি আর পাসওয়ার্ড দিতে হয় না। ডিজিটান টোকেনের মাধ্যমে কোন ডিভাইসে একবার লগ ইন করলে সেই ডিভাইস সবসময়ের জন্য লগ ইন হয়ে থাকে। এই ডিজিটাল টোকেন ব্যবহার করেই পাঁচ কোটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। তবে কে বা কেন এই হ্যাকিং করে তা জানা যায়নি।

    এই হ্যাকিং অ্যাটাকে মোট ক্ষতির পরিমান এখনো অজানা। তবে ফেসবুক জানিয়েছে এখন সব অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত। এই হ্যাকিং থেকে উদ্ধার করতে এই সব অ্যাকাউন্টের ডিজিটাল টোকেন রিসেট করে দিয়েছে ফেসবুক। তাই এই অ্যাকাউন্টগুলি আবার পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে গ্রাহকদের।

    ফেসবুকের 'ভিউ অ্যাস’ নামক একটি ফিচার রয়েছে। এই ফিচারে অন্য মানুষ আপনার প্রোফাইল কীভাবে দেখতে পান তার প্রিভিউ পাওয়া যায়। এই ফিচারকে কাজে লাগিয়ে হ্যাক হয়ে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট।

    রেনডিশন ইনফোসেক এর নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ জ্যাক উইলিয়ামস বলেন, চুরি হয়ে যাওয়া 'অ্যাক্সেস টোকেন’ ব্যবহার করে হামলাকারীরা ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য হয়তো দেখতে পারবে কিন্তু, তাদের পাসওয়ার্ড ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারবে না।

    রোসেন আরও লিখেন, অ্যাকসেসে টোকেন অনেকটা ডিজিটাল চাবির মতো যা একজন ব্যবহারকারীকে ফেসবুকে লগ-ইন করে থাকে। তাই প্রতিবার এই অ্যাপ ব্যবহারের সময় পাসওয়ার্ড দেয়ার প্রয়োজন নেই।

    তবে কারা এই হামলা চালিয়েছে সেটি স্পষ্ট করে বলতে পারেনি ফেসবুক। তবে তারা জানাচ্ছে, ইতোমধ্যে ওই সমস্যার সমাধান করা হয়েছে এবং এ বিষয়ে এফবিআই এবং অন্যান্য আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, এছাড়া আইনপ্রণেতা ও নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোকে জানানো হয়েছে।

    সম্প্রতি, যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ অ্যানালেটিকা নামের একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার পর আবার এমন বড় ধাক্কা এসে পড়লো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটির ব্যবহারকারীদের ওপর।

    Read more about:
    English summary
    Facebook security breach: The incident was big enough for Facebook CEO and founder Mark Zuckerberg to post that the social network was still investigating the breach

    Bengali Gizbot আপনাকে নটিফিকেশন পাঠাতে চায়

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Gizbot sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Gizbot website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more