পৃথিবী থেকে মশা বিনাশে এই উদ্যোগ নিল গুগল

    ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেসনো কাউন্টি থেকে সব ধরনের মশাবাহির রোগ নির্মুল করতে বিশেষ উদ্যোগ নিল গুগলের প্রধান কোম্পানি অ্যালফাবেট। কোম্পানির এক প্রতিষ্ঠানের জীব বিজ্ঞানীরা এই প্রোজেক্টে কাজ করছেন। ফ্রেসনো কাউন্টিতে সফল ভাবে এই কাজ করতে পারলে পৃথিবীর অন্যান্য প্রান্তেও এই কাজ করবে মার্কিন কোম্পানিটি। বিশেষ করে যে সব জাগগাতে দেঞ্জি, ম্যানেরিয়া ও চিকেনগুনিয়ার উৎপাত বেশি সেই সব জায়গায় দারুন কার্যকর হবে এই উদ্যোগ।

    পৃথিবী থেকে মশা বিনাশে এই উদ্যোগ নিল গুগল

     

    নতুন এই পদ্ধতিতে কয়েক হাজার পুরুষ এডিস মশার দেহে এক ব্যাকটেরিয়া ঢুকিয়ে দেওয়া হবে। জেনেটিকালি মডিফায়েড এই মশা মানুষকে কামড়াবে না। মেয়ে মশার সাথে মিলনের পরে তাদের শরিরেও এই ব্যাকটেরিয়া ছড়িয়ে দেবে পুরুষ মশাগুলি। এরপরে মেয়ে মশা ডিম পাড়লেও সেই ডিম থেকে নতুন মশার জন্ম হবে না।

    “জঙ্গলে ৮০,০০০ পুরুষ মশার দেহে এই ব্যাকটেরিয়া ঢোকানো হয়েছিল। এর পরে কোন ডিম ফুটে নতুন মশান জন্ম হয়নি। ” বলে জানিয়েছেন এই প্রোজেক্টের সাথে যুক্ত ভেরিলির এক বিজ্ঞানী। সম্প্রতি ব্লুমবার্গে এই খবর প্রকাশিত হয়েছে।

    এডিস মশা আফ্রিকা থেকে এসেছিল। কিন্তু এখন সারা বিশ্বের ১২০ টি দেশে এই মশা পাওয়া যায়। গ্রীষ্মপ্রধান দেশগুলিতে এই মশা পাওয়া যায়। ভারতেও এই মশার বাড়বাড়ন্ত অনেকদিন ধরেই।

    ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, “পৃথিবীতে মশা না থাকলে বাস্তুতন্ত্রে তার কী প্রভাব পড়বে তা জানা যায়নি। কিছু বিজ্ঞানী জানিয়েছেন বাস্তুতন্ত্রে মশার বিশেষ ভুমিকা নেই।”

    অস্ট্রেলিয়ায় একই ধরনের গবেষণায় মাত্র তিন মাসে ৮০ শতাংশ মশার উপদ্রব কমেছে। এর ফলেই আশাবাদী হয়েছেন বিজ্ঞানীরা। হয়ত খুব শিঘ্রই পৃথিবী থেকে নির্মূল হয়ে যাবে কানের পাশে ভনভন করে উড়তে থাকা বিরক্তিকর মশাগুলি।

    Read more about:
    English summary
    Google's parent Alphabet is working overtime to eradicate mosquito-borne diseases.

    Bengali Gizbot আপনাকে নটিফিকেশন পাঠাতে চায়

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Gizbot sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Gizbot website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more