হোয়্যাটসআপ বনাম ফেসবুক মেসেঞ্জার বনাম টেলিগ্রাম: যেখানে এরা আলাদা

By Sabyasachi Chakraborty

    বছর খানেক আগে কয়েকটা আইএম অ্যাপ এসে মেসেজিং-এর দুনিয়াটাকেই ওলটপালট করে দিল। মেসেজিং-ও এত কুল হতে পারে, জানা ছিল না তা। এখনও পর্যন্ত সবথেকে কুল মেসেজিং অ্যাপগুলির মধ্যে ফেভারিট হোয়্যাটসঅ্যাপ, ফেসবুক মেসেঞ্জার এবং অবশ্যই টেলিগ্রাম।

    হোয়্যাটসআপ বনাম ফেসবুক মেসেঞ্জার বনাম টেলিগ্রাম:  যেখানে এরা আলাদা

    আসুন এই তিনটির ফিচার্স, ভাল আর খারাপ জিনিসগুলোর মধ্যে একটা ছোটখাটো তুলনা হয়ে যাক।

    হোয়াটসঅ্যাপ
       

    হোয়াটসঅ্যাপ

    আইএম গুলির মধ্যে সবথেকে পপুলার বলা যায় হোয়াটসঅ্যাপকে। এরমতো অ্যাক্টিভ ইউজার আর কোনও অ্যাপসের নেই। আপনার ডিভাইসে এই অ্যাপস ইনস্টল করতে দরকার শুধুমাত্র আপনার ফোন নম্বর। এই অ্যাপসের মধ্যে দিয়ে অডিও, ভিডিও, ফটো এমনকি ডকুমেন্টসও সেন্ড করতে পারেন। হোয়াটসঅ্যাপ ইনস্টল হয়ে গেলে, একজনের সঙ্গে এবং গ্রুপে একাধিক জনের সঙ্গে চ্যাট করতে পারবেন।

    সম্প্রতি নতুন কিছু আপডেট এসেছে এই অ্যাপে। ভয়েস কল, ভি়ডিও কল, টেম্পোরারি স্টেটাস আপডেট, জিআইএফ সহ আরও অনেক কিছু। কথাবার্তায় একটু মশলা ছড়াতে রয়েছে বিস্তর ইমোজিও।

    হোয়াটসঅ্যাপে থার্ড পার্টি অ্যাপ, গুগল ড্রাইভ, ওয়ান ড্রাইভ, আই ক্লাউড থেকে জিনিসপত্র শেয়ার করা যেতে পারে। আইওএস-এর মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপের সঙ্গে সিরি-র ইন্টিগ্রেশন রয়েছে। ফলে অ্যাপ থেকেই সরাসরি মেসেজ বা ভয়েস কল করা যায়।

    অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস এবং উইন্ডোজ, সমস্ত প্লাটফর্মেই স্বচ্ছন্দ হোয়াটসঅ্যাপ। মোবাইল ছাড়াও ডেক্সটপ এবং ল্যাপটপেও ব্যবহার করা যায় একে।

    ফেসবুক মেসেঞ্জার
       

    ফেসবুক মেসেঞ্জার

    হোয়াটসঅ্যাপের মতোই ফেমাস ফেসবুক মেসেঞ্জার। অন্তত মেসেজ করার ক্ষেত্রে তো বটেই। কোনও রকম জটিলতা নেই, কাজকম্ম বেশ উন্নত, ব্যবহারও সহজ। এই অ্যাপেও ভয়েজ কল বা ভিডিও কল করা যায়। জিআইএফ বা স্টিকারও সাপোর্ট করে এতে।

    রিসেন্ট আপডেটের ফলে এখন আপনি আপনার লোকেশনও বন্ধুবান্ধবদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন। তবে এতে এন্ড টু এন্ড এনক্রিপটন নেই। সেটা অবশ্যই ভাববার বিষয়। যদিও এতে সিক্রেট কনভারসেসনের অপশন রয়েছে। যাতে মেসেজ আপনা আপনিই ডিলিট হয়ে যায়।

    টেলিগ্রাম
       

    টেলিগ্রাম

    সিকিওরিটির প্রশ্নে টেলিগ্রামের কিন্তু এন্ড টু এন্ড এনক্রিপটন রয়েছে। কিন্তু তাতেও সমস্যা। সিক্রেট চ্যাট মোড অপশনে গেলে তবেই মিলবে এই সুবিধা। তবে টেলিগ্রামের যেটা ভাল, তা হল এতে ১ জিবি পর্যন্ত ফাইল সাপোর্ট করে। নিজেকে প্রচুর আপডেট করেছে টেলিগ্রাম। ফেসবুক আর হোয়াটসঅ্যাপে যা যা হয়, এখন টেলিগ্রামও তার থেকে পিছিয়ে নেই। ছবি, অডিও, ভিডিও সহ নানান জিনিস এখন টেলিগ্রাম থেকেও শেয়ার করা যায়।

    Read more about:
    English summary
    A few years ago, handful of IM app has changed the way of messaging with some cool updates forever.Today, we are going to do a short comparison of among these three based on their features, good and bad.

    Bengali Gizbot আপনাকে নটিফিকেশন পাঠাতে চায়

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Gizbot sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Gizbot website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more