গ্রাহক একজন ‘হিন্দু ডেলিভারি বয়’ চেয়েছিলেন, জানালেন জোমাটো প্রতিষ্ঠাতা

By Gizbot Bureau
|

খাবারের আবার ধর্ম। তা নিয়ে তোল্পাড় গোটা দেশ। মঙ্গলবার রাতে জোমাটতে এক গ্রাহক খাবার অর্ডার করেছিলেন। কিছু সময় পরে তিনি দেখতে পান এক মুসলিম ধর্মাবলম্বী ব্যাক্তিকে তার খাবার বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। সাথে সাথে বেঁকে বসেন গ্রাহক। তিনি জোমাটকে জানান যে হয় হয় কোন হিন্দুর হাত দিয়ে এই খাবার পাঠাতে হবে। এই শর্ত না মানলে অর্ডার বাতিল করে দেবেন তিনি এবং অর্ডারের টাকা বাতিল করতে হবে কোম্পানিকে। মধ্যপ্রদেশের জবলপুরে মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনাটি ঘটেছে।

গ্রাহক একজন ‘হিন্দু ডেলিভারি বয়’ চেয়েছিলেন, জানালেন জোমাটো প্রতিষ্ঠাতা

 

এই ঘটনার সাথে সাথেই অফিশিয়াল ট্যুইটার হ্যান্ডেল থেকে জোমাট জানিয়েছে 'খাবারের কোন ধর্ম হয় না।’ এই আলোচনায় যোগ দেন জোমাটর প্রতিষ্ঠাতা দিপেন্দার গোয়েল। এই ধরনের ধার্মিক বৈষম্যকে সমর্থন করে না জোমাটো। এই রক মানসিকতার গ্রাহকরা চাইলে জোমাটো ব্যবহার বন্ধ করতে পারেন। এই ঘটনার পরে জবলপুরের ঐ ব্যাক্তি কোম্পানির বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

ট্যুইটারে গোয়েল লিখেছেন, “ভারতের মতাদর্শের জন্য আমরা গর্বিত। আমাদের আদর্শ কক্ষা করতে গিয়ে ব্যবসা নষ্ট হলে আমরা কিছু মনে করব না।”

গত বছর ট্যাক্সি অ্যাপ ওলা তে এই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের এক সদস্য ট্যুইটারে মুসলিম ড্রাইভার পাঠানোর প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। এর পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় এর বিরুদ্ধে ঝড় ওঠে।

জোমাটর মতোই সেই সময় ওলা গ্রাহকের এই অভিযোগ মেনে নেয় নি। ওলা জানিয়েছিল, “আমাদের দেশের মতোই ধর্ম নিরপেক্ষ ওলা। আমরা কোন জাতি ও ধর্মের ভিত্তিতে গ্রাহক ও আমাদের সহযোগীদের বিভাজন করি না। আমরা সব গ্রাহক ও ড্রাইভারকে একের অপরের প্রতি সমান মনোভাব দেখানোর আহ্বান জানাচ্ছি।”

Most Read Articles
Best Mobiles in India

Read more about:
English summary
Zomato Teaches A Lesson For A Customer Who Needs A Hindu Delivery Boy

Best Phones

চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Yes No
Settings X
X